Saturday, June 22, 2024

সম্পত্তি আপসে ভাগ না হলে আদালতের আশ্রয় নিন

অর্থভুবন ডেস্ক

প্রশ্ন: আমার বাবা একজন ব্যাংক কর্মকর্তা ছিলেন। তিনি সম্প্রতি মারা গেছেন। বাবা বেঁচে থাকা অবস্থায় আমাদের দেশের বাড়িতে দাদার জমির ওপরে একটা বাড়ি করেছিলেন। বাবা মারা যাওয়ার পর আমার চাচাতো ভাইয়েরা বাড়িটিতে উঠতে চাইছেন। জমি আমার দাদার নামে হওয়ায় কোনো কাগজপত্র আমাদের নামে নেই। কিন্তু বাড়ি পুরোটাই আমার বাবা বানিয়েছেন। এ ক্ষেত্রে আমি আর আমার ভাই (বয়স ২৮) কি বাড়ির কোনো কাগজ তৈরি করতে পারব? 
মারফি তাসনিম, সিলেট

অবশ্যই পারবেন, তবে তার জন্য আপনাকে পরিবারের সঙ্গে একটি মীমাংসা করতে হবে। আর তা করতে ব্যর্থ হলে আদালতের আশ্রয় নিতে হবে। আপনার প্রশ্ন থেকে এ কথা স্পষ্ট নয় যে, আপনার বাবা আপনার দাদার পুরো জমির ওপর বাড়িটি তৈরি করেছেন, নাকি একটি অংশে তৈরি করেছেন। যদি আপনার বাবা আপনার দাদার পুরো জমির ওপর বাড়ি তৈরি করে থাকেন, তাহলে আপনার দাদার বাকি ওয়ারিশরাও কিন্তু ওই জমির ভাগীদার। আপনার বাবা যে বাড়িটি বানিয়েছেন, তার ব্যয়ভার যে পুরোটাই তিনি বহন করেছেন, তা প্রমাণ করতে হবে। সেটি করতে পারলে আপনার দাদার বাকি ওয়ারিশদের ওই বাড়ি ভোগ করার ক্ষেত্রে বাড়ি নির্মাণের খরচ আপনার বাবাকে বা তাঁর অবর্তমানে আপনাদের দিতে হবে। আর বাকি ওয়ারিশরা যদি বাড়ি ভোগ করতে না চান, তাহলে আপনাদের তাঁদের অংশ কিনে নিতে হবে।

আপনার বাবা যদি আপনার দাদার জমির পুরোটাতে বাড়ি নির্মাণ করে না থাকেন, সে ক্ষেত্রে ওয়ারিশদের মধ্যে জমি ভাগ করে যদি দেখা যায় যে আপনার বাবা যতটুকু অংশ পাবেন তার ওপর তিনি বাড়ি তৈরি করেছিলেন, তাহলে সেটা আপনাদেরই হবে। কিন্তু যেহেতু জমি ভাগ করার আগেই বাড়িটি নির্মাণ করা হয়েছে, তাই এ ক্ষেত্রে আপনাদের আপস বণ্টননামা করতে হবে। আপসে যদি বণ্টন করা না যায়, তাহলে বিজ্ঞ আদালতের আশ্রয় নিতে হবে। আদালতে আপনাদের একটি পার্টিশন স্যুট করতে হবে এবং আপনার বাবা যে এই বাড়ি তৈরি করেছেন, সেই প্রমাণ দেখালে বিজ্ঞ আদালত আপনাদের নামে আইন অনুযায়ী আপনার বাবার প্রাপ্য অংশ অর্থাৎ জমি ও বাড়িটি বুঝিয়ে দেবেন। আপনার দাদার অন্য ওয়ারিশদের আপনারা মূল্য পরিশোধ করবেন নাকি আপনাদের তারা মূল্য পরিশোধ করবেন, সেই রায়ও আপনারা বিজ্ঞ আদালত থেকেই পাবেন। তবে এ ধরনের মামলায় অনেক দীর্ঘসূত্রতা থাকে বলে আদালতের বাইরে সব পক্ষের আপস বণ্টননামা করে নেওয়াই শ্রেয়।

আরেকটি বিষয় আপনি বলেছেন, তা হলো আপনার দাদার নামে এখনো সম্পত্তি রয়ে গেছে। এ ক্ষেত্রে আপনাদের ওয়ারিশনামা বের করতে হবে। আপনাদের বাবার অবর্তমানে আপনার বাবার যারা ওয়ারিশ তাদের নাম আপনাদের দাদার ওয়ারিশনামায় অন্তর্ভুক্ত হবে। ওয়ারিশানামা পেলে সেই অনুযায়ী আপনাদের সংশ্লিষ্ট জমির নামজারি ও খাজনার কাজটিও সম্পূর্ণ করতে হবে।

পরামর্শ দিয়েছেন, ব্যারিস্টার ইফফাত গিয়াস আরেফিন, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট

spot_imgspot_img

ইতালিপ্রবাসীদের জন্য সুখবর দিল ভিএফএস

ভিএফএস গ্লোবালের অনিয়ম-দুর্নীতি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশের পর নড়েচড়ে বসেছে ভিএফএস গ্লোবাল। এবার তারা ইতালিপ্রবাসীদের জন্য সুখবর নিয়ে এসেছে। ভিএফএস তাদের নিজস্ব ফেসবুক পেজের মাধ্যমে...

জেলখানার চিঠি বিকাশ চন্দ্র বিশ্বাস  কয়েদি নং: ৯৬৮ /এ  খুলনা জেলা কারাগার  ডেথ রেফারেন্স নং: ১০০/২১ একজন ব্যক্তি যখন অথই সাগরে পড়ে যায়, কোনো কূলকিনারা পায় না, তখন যদি...

কর্মসৃজনের ৫১টি প্রকল্পে নয়ছয় মাগুরায়

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলায় ২০২৩-২৪ অর্থবছরে অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচির (ইজিপিপি) আওতায় দ্বিতীয় পর্যায়ের ৫১টি প্রকল্পের কাজে নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। প্রকল্পে হাজিরা খাতা না...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here