Saturday, June 22, 2024

খাবারের থালে ৩ হাজার পদ

নেই ডিম-মাছ-মাংস, রান্নায় ৭০০ শেফ
 অর্থভুবন ডেস্ক 

 

নিরাপত্তা থেকে আপ্যায়ন-জি-২০ সম্মেলন আয়োজনে বিশ্বকূটনীতির ‘ষোলোকলা’য় পূর্ণ করল ভারতের মোদি সরকার। ঘরে ডেকে অতিথিকে শুধু নিজের হেঁসেলের কারিশমা দেখাচ্ছে তা নয়, তাদের দেশের ‘কিচেন বিদ্যা’তেও যে সমান পটু ভারত, সেই স্বাদও ঢেলে দিচ্ছে পশ্চিমা নেতাদের জিহ্বায়। এর মাঝে যে শুধুই রন্ধন বিদ্যার পাণ্ডিত্য দেখাল তা কিন্তু নয়, খাবারের এই আত্মতৃপ্তির ঢেঁকুরে প্রাচ্য-পাশ্চাত্যের মেলবন্ধনের সুগন্ধও সমানভাবে ছড়িয়ে দিল বিশ্বমোড়লদের নাকে। বিদেশিদের সবার রুচিই মাথায় রেখে সব মিলিয়ে সাড়ে ৩ হাজার পদের খাবার তৈরি করছে দিল্লি। আর হাজার হাজার এই অতিথির রসনা তৃপ্তির ভার দিল্লির বিলাসবহুল হোটেলের ৭০০-র বেশি শেফের ওপর। এর মধ্যে ভারতীয় পরম্পরায় (সব রাজ্যের) তৈরি খাবার যেমন থাকছে, তেমনই থাকছে পাশ্চাত্যের মেনুও। সবই হচ্ছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রত্যক্ষ নজরদারিতে। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, ইন্ডিয়া টুডে।

দক্ষিণ ভারতের ইডলি-দোসা-উত্তপম, নারিকেল তেল দিয়ে তৈরি বিভিন্ন পদ, কাশ্মীর আর লখনৌয়ের নবাবি কাবাব, পাঞ্জাবের সরষে দা শাগ-মক্কিদা রুটি, মালাই দেওয়া লস্যির সঙ্গে থাকছে বাংলার সরষে ভাপা পদ্মার ইলিশ আর ডাব চিংড়ি। সঙ্গে থাকছে মিলেট, রাগি, বাজরার রুটও। মিষ্টির আইটেম থাকছে কয়েকশ, যার মধ্যে জায়গা করে নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গে সুস্বাদু রসগোল্লা, নারকেল নাড়ুও। মেনুতে থাকছে সবার পছন্দের রুশ স্যালাদও। জি-২০তে আগত বিদেশিদের রসনাতৃপ্তির জন্য তৈরি মেনুতে ভারতীয় রেসিপির সঙ্গে মেশানো হয়েছে পাশ্চাত্যের ভাবধারাকেও, এমনটাই জানালেন দিল্লির বিখ্যাত হোটেলের সেলিব্রিটি শেফ মুস্তাক। তার দাবি, আপনারা পাও ভাজি খেয়েছেন, দোসা খেয়েছেন। আমরা সেই পাও ভাজি, দোসার সঙ্গে বিদেশি রেসিপির সংমিশ্রণ ঘটিয়ে নতুন পদ তৈরি করেছি। আমরা নিশ্চিত, আমাদের প্রচেষ্টা বিদেশিদের মন জয় করবেই।

নেই ডিম-মাছ-মাংস : এই বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কিছুই জানানো হয়নি। তবে সূত্রের খবর, প্রতিনিধিদের আনুষ্ঠানিক নৈশভোজে ডিম, মাছ বা মাংস থাকবে না। ভারতের বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী নিরামিষ খাদ্যপদ পরিবেশন করা হবে। খাদ্যপদের মধ্য দিয়ে ভারতের বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতিকে তুলে ধরা হবে। আর নিরামিষ খাদ্যপদের প্রধান আকর্ষণ হতে চলেছে বাজরা থেকে তৈরি বিভিন্ন খাবার। ২০২৩ সালকে ভারত ‘ইয়ার অব মিলেটস’ বা ‘বাজরার বছর’ হিসাবে উদ্যাপন করছে। তার প্রতিফলন থাকবে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের অতিথিদের খাদ্যতালিকায়ও।

স্পেশাল স্ট্রিট ফুড : ভারতের স্ট্রিট ফুড সারা বিশ্বে জনপ্রিয়। সেই কথা মাথায় রেখে স্ট্রিট ফুডেরও বিশাল আয়োজন রাখা হচ্ছে জি-২০ অতিথিদের জন্য। ফুচকা, চটপটি চাট, দই বড়া, সিঙারার মতো বিভিন্ন ভারতীয় স্ট্রিট ফুডের স্বাদ নিতে পারবেন আগত প্রতিনিধিরা।

spot_imgspot_img

ইতালিপ্রবাসীদের জন্য সুখবর দিল ভিএফএস

ভিএফএস গ্লোবালের অনিয়ম-দুর্নীতি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশের পর নড়েচড়ে বসেছে ভিএফএস গ্লোবাল। এবার তারা ইতালিপ্রবাসীদের জন্য সুখবর নিয়ে এসেছে। ভিএফএস তাদের নিজস্ব ফেসবুক পেজের মাধ্যমে...

জেলখানার চিঠি বিকাশ চন্দ্র বিশ্বাস  কয়েদি নং: ৯৬৮ /এ  খুলনা জেলা কারাগার  ডেথ রেফারেন্স নং: ১০০/২১ একজন ব্যক্তি যখন অথই সাগরে পড়ে যায়, কোনো কূলকিনারা পায় না, তখন যদি...

কর্মসৃজনের ৫১টি প্রকল্পে নয়ছয় মাগুরায়

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলায় ২০২৩-২৪ অর্থবছরে অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচির (ইজিপিপি) আওতায় দ্বিতীয় পর্যায়ের ৫১টি প্রকল্পের কাজে নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। প্রকল্পে হাজিরা খাতা না...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here