Wednesday, June 19, 2024

সিএসইতে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে

তথ্যপ্রযুক্তির বিপ্লবের এই যুগে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বৈশ্বিকভাবেই বেশ আলোচিত। বিজ্ঞান একের পর এক আবিষ্কার করে চলবে এবং সেই জয়যাত্রায় মানুষের সঙ্গী হিসেবে থাকবে বিভিন্ন কম্পিউটার সিস্টেম ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। বিজ্ঞানীরা অনেক সময় এমন গাণিতিক হিসাব-নিকাশ করে থাকেন, যেটা মানুষের পক্ষে অনেক সময়সাপেক্ষ এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে অসম্ভব। আজকাল বিভিন্ন ব্রাউজার দিয়ে আমরা ইন্টারনেটে ব্রাউজ করে যেকোনো তথ্য পেতে পারি। পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তে থাকা প্রিয়জনের সঙ্গে অডিও অথবা ভিডিও কলে কথা বলতে পারি। এর সবই সম্ভব হয়েছে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে বিপ্লবের কারণে। মূলত প্রযুক্তি ছাড়া আমরা এখন অসহায়।
 

বিষয়টি কোন শিক্ষার্থীদের জন্য
যদিও আজকাল সবাই কম্পিউটার সায়েন্স পড়তে চায়, কিছু জিনিস বাস্তবিকভাবে আলোচনা করা উচিত। সবাই কম্পিউটার সায়েন্সের জন্য উপযোগী নয়। সবাই কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার হলে, গাড়ি বানাবে কারা? ব্যবসা করবে কারা? ডাক্তার হবে কারা? গায়ক হবে কারা? যার গায়ক হওয়ার কথা, সে যদি পরিবার ও সমাজের চাপে কম্পিউটার সায়েন্স পড়তে আসে, হয়তো সে খুব ভালো করবে না। যেকোনো ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্রকে অবশ্যই অধ্যবসায়ী হতে হবে। অধ্যবসায় ছাড়া ইঞ্জিনিয়ার হওয়া যায় না। সত্যি বলতে, অধ্যবসায় ছাড়া কিছুই অর্জন করা যায় না জীবনে এবং অধ্যবসায়ের পাশাপাশি লাগবে ইঞ্জিনিয়ারিং জ্ঞান অর্জন করার তীব্র পিপাসা। শুধু জ্ঞান অর্জন করে বসে থাকলেই হবে না। সেই জ্ঞান কাজে লাগিয়ে সমাজ ও পৃথিবীর জন্য কিছু করার মানসিকতা থাকতে হবে। 

 

প্রোগ্রামিংকে ভালোবাসতে হবে
কম্পিউটার সায়েন্সের সব শিক্ষার্থীকেই প্রোগ্রামিংয়ের প্রতি ভালোবাসা থাকতে হবে। প্রোগ্রামিং না জেনে কম্পিউটার সায়েন্স পাস করা যায় না। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন প্রোগ্রামিং ভাষা এবং টুল নিয়ে কাজ করা শিখতে হবে। প্রোগ্রামিং ও ইঞ্জিনিয়ারিং সমস্যার সমাধান করার নেশা থাকতে হবে। 

গণিতের জ্ঞান
আরেকটা জিনিস খুবই দরকারি। এটা বোনাসের মতো। যার যত আছে, সে তত লাভবান। সেটা হলো গণিতের প্রতি ভালোবাসা। যে গণিতে অনেক ভালো, তার কম্পিউটার সায়েন্সও অনেক ভালো লাগার কথা। কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের মধ্যেও অগণিত ট্র্যাক আছে। এগুলো সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং অথবা হার্ডওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের মধ্যে পড়ে। 

পড়াশোনার যোগ্যতা
বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শর্ত পূরণ সাপেক্ষে ভর্তি হতে পারবে। তবে যারা ভর্তি পরীক্ষার মেধাতালিকায় প্রথম দিকে অবস্থান করবে, তাদের এই বিষয়ে মনোনীত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। কেননা, এর চাহিদাও বেশি। 

কোথায় পড়া যাবে
বিশ্বের নামীদামি বিশ্ববিদ্যালয়ে বহু আগ থেকেই এই বিষয় পড়ানো হয়। বাংলাদেশে ইঞ্জিনিয়ারিংসহ অন্যান্য সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সিএসই পড়ানো হয়। বেসরকারি কয়েকটি ভালো বিশ্ববিদ্যালয়েও শিক্ষার্থীদের চাহিদা মেটাতে চালু হয়েছে বিভাগটি। 

কর্মসংস্থান ও চাকরির সুযোগ
সরকারি-বেসরকারি নানা জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক ফলাফল ভালো থাকলে হতে পারবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক। এ ছাড়া শিক্ষার্থীরা চাইলে বিসিএস ও অন্যান্য চাকরির পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেন। এই বিষয়ের শিক্ষার্থীদের প্রাধান্য থাকে তুলনামূলক। এ ছাড়া গবেষণার সুযোগ তো আছেই। 

কেন গুরুত্বপূর্ণ
আমাদের ভবিষ্যৎ যেহেতু কম্পিউটার বিজ্ঞানের সাফল্যের ওপর নির্ভরশীল, তাই এখানে বেশ ভালো, দক্ষ বিজ্ঞানী ও ইঞ্জিনিয়ারের প্রয়োজন।  কম্পিউটার সায়েন্সের অনেক সমস্যা রয়েছে এবং এগুলো সমাধান করতে পারলে মানুষের জীবন অনেক সহজ হয়ে যাবে। ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলো আরও লাভবান হবে। সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো নিজেদের কাজগুলো আরও ভালোভাবে করতে পারবে।  

পড়তে যত খরচ 
সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে নামমাত্র খরচে স্নাতক, স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেওয়া যায়। তবে বিভিন্ন আনুষঙ্গিক খরচ থাকায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার খরচ বেশি হয়ে থাকে। 

উচ্চশিক্ষায় সুযোগ
সারা পৃথিবীতে কম্পিউটার সায়েন্সের ওপর উচ্চশিক্ষার সুযোগ সব দেশেই অনেক বেশি। কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া, জাপানসহ ইউরোপের অনেক দেশে প্রচুর ভালো ভালো সুযোগ আছে স্কলারশিপ নিয়ে পড়ার জন্য। ভালো ফলাফল, গবেষণাপত্র, চাকরির অভিজ্ঞতা, জিআরই, ইংলিশ টেস্ট স্কোর থাকলে আরও সহজ হয়। কম্পিউটার সায়েন্স পড়ে কাউকে উচ্চশিক্ষা অথবা ভালো চাকরির জন্য ভয় পেতে হয় না। তবে বিদেশে গেলে সুযোগ বাড়ে। দেশে উচ্চশিক্ষা ও চাকরি—দুটোরই অবস্থা একটু অবনত। কিন্তু অন্যান্য ইঞ্জিনিয়ারিং সাবজেক্টের তুলনায় অনেক ভালো। 

জাদিদ হাসান, প্রভাষক, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়। 

 

spot_imgspot_img

দেশের উপকূলে সেরা সব সমুদ্র সৈকত

সমুদ্র তটরেখার দেশ বাংলাদেশ। এ দেশ অপরূপ এক বদ্বীপ। আর এই বদ্বীপের জন্য প্রকৃতির আশীর্বাদ বঙ্গোপসাগর। সাগরের নোনা জলে অনেক কিছু পেয়েছে এদেশের মানুষ।...

‘ফুরমোন পাহাড়’ পর্যটকদের মুগ্ধ করছে

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি পাহাড়ি জেলা রাঙ্গামাটি। যেটি রূপের রানী নামে খ্যাত। পাহাড়, মেঘ, ঝিরি-ঝর্ণা, আঁকাবাঁকা পথের সঙ্গে মিশে আছে সুবিশাল মিঠাপানির কাপ্তাই হ্রদ। শহরে...

রাখাইনের সহিসংতা নৃশংসতার দিকে চলে যেতে পারে: যুক্তরাষ্ট্র

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সহিংসতা এবং আন্তঃসাম্প্রদায়িক উত্তেজনা বাড়ার কারণে যুক্তরাষ্ট্র গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। যুক্তরাষ্ট্র মঙ্গলবার এ কথা জানিয়ে বলেছে, রাখাইনের সহিসংতা নৃশংসতার দিকে চলে যেতে পারে। নভেম্বরে...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here