Saturday, July 13, 2024

পিসিওএস নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজন সঠিক খাদ্যাভ্যাস

পিসিওএসে মেয়েদের স্ত্রী হরমোনের মাত্রা কমার পাশাপাশি পুরুষ হরমোনের মাত্রা বাড়তে থাকে। পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রমের প্রভাবে শরীরে মারাত্মক ক্ষতিকর কোনো সমস্যা হয় না, তবে এটি শরীরে হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট হয়। এর ফলে প্রতি মাসে ওভারি থেকে ডিম্বাণু নির্গমন হয় না, এই ডিম্বাণুগুলো ওভারিতে পানির থলে বা সিস্ট তৈরি করে ওভারির চারপাশে জমা হয়।

কারণ

* অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপন

* অতিরিক্ত মানসিক চাপ

* জিনগত কারণ

* অতিরিক্ত শারীরিক ওজন

* শরীরে হরমোনের ভারসাম্যহীনতা ইত্যাদি।

 

 

খাদ্যাভ্যাসের দিকে বিশেষ নজর দিন

পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম (পিসিওএস) একটি বিপাকজনিত সমস্যা। এতে ওজন বেড়ে যাওয়া, হরমোনের তারতম্য, ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্সসহ নানা ধরনের মেটাবলিক বা বিপাকীয় সমস্যা দেখা দেয়। তাই এ সমস্যায় খাদ্যাভ্যাসের দিকে বিশেষ নজর দেওয়া প্রয়োজন। পিসিওএসের চিকিৎসার একটি বড় অংশ হলো ওজন নিয়ন্ত্রণ আর খাদ্যাভ্যাস।

 
তাই এদিকে বেশি জোর দিতে হবে।

ওজন নিয়ন্ত্রিত হলে ঋতুস্রাবও ধীরে ধীরে নিয়মিত হয়ে যাবে ও হরমোনজনিত ভারসাম্যহীনতা অনেকটাই কমে যাবে। আবার ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স থাকার কারণে নির্দিষ্ট ডায়েট মেনে চলা উচিত।

যেসব খাবার এড়িয়ে চলা উচিত

* ডুবো তেলে ভাজা খাবার যেমন—চিকেন বা ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, পটেটো চিপস, কর্ন চিপস ইত্যাদি

* স্যাচুরেটেড ফ্যাট যেমন মাখন বা মার্জারিন

* লাল মাংস, প্রক্রিয়াজাত মাংস।

* প্রক্রিয়াজাত খাবার ও স্ন্যাকস যেমন—সাদা চিনিযুক্ত কেক, কুকিজ, ক্যান্ডি ইত্যাদি

* পরিশোধিত ময়দা, সাদা রুটি, রোল, পিজ্জার ক্রাস্ট, পাস্তা ইত্যাদি

* ভাজাপোড়া, জাংক ফুড, প্রসেস করা খাবার, যেমন—কেক, পেস্ট্রি, চকোলেট, পাউরুটি, বার্গার, সসেজ ডায়েট থেকে বাদ রাখতে হবে।

* চিনিযুক্ত পানীয় যেমন—সোডা এবং সফট ড্রিংকস বাদ দেওয়া ভালো, মিষ্টি, আইসক্রিম, বোতলের ঠাণ্ডা পানীয় যত কম খাওয়া যায়, তত ভালো।

যেসব খাবার গ্রহণ করা ভালো

* ওমেগা-৩ সমৃদ্ধ খাবার যেমন বিভিন্ন প্রকার বাদাম ও সামুদ্রিক মাছ।

* রেড মিটের বদলে চিকেন বা মাছ খান।

* মাখন বা মার্জারিনের পরিবর্তে অলিভ অয়েল।

* কম স্টার্চযুক্ত সবজি যেমন সব শাক, টমেটো, মাশরুম, ক্যাপসিকাম, ব্রকোলি, ফুলকপি, লাউ, পেঁপে, ঝিঙে, চিচিঙ্গা, ধুন্দল ইত্যাদি।

* গোটা শস্য, যেমন বাদামি চাল, বার্লি এবং অন্যান্য। আস্ত শস্য বা দানাশস্য দিয়ে তৈরি পাউরুটি এবং পাস্তা পিসিওএস আক্রান্ত ব্যক্তিদের রক্তে শর্করার বৃদ্ধি এড়াতে সাহায্য করতে পারে।

* খোসাসহ আস্ত ফল। আস্ত ফলের মধ্যে থাকা ফাইবার উপাদান আপনাকে পরিপূর্ণ বোধ করতে সাহায্য করে, আপনার হজমে সাহায্য করে এবং রক্তে এর শর্করার শোষণকে ধীর করে দেয়।

 

পরামর্শ দিয়েছেন

পুষ্টিবিদ নাহিদা আহমেদ

ফরাজী ডায়াগনস্টিক ও হাসপাতাল, ঢাকা।

spot_imgspot_img

দেশ্যম ইউরো থেকে বিদায়ের দায়ভার নিজের কাঁধে নিলেন

ফ্রান্সের কোচ দিদিয়ের দেশ্যম দলের তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে কিংবা আঁতোয়ান গ্রিজম্যানদের ব্যর্থতাকে ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশীপের সেমিফাইনাল থেকে বিদায়ের জন্য দায়ী করেননি। স্পেনের কাছে ২-১ গোলে...

বুয়েটের শিক্ষার্থীরা ‘উচ্ছ্বসিত’ টগি ফান ওয়ার্ল্ডের লেজার ট্যাগে

টগি ফান ওয়ার্ল্ড থিম পার্কে সম্প্রতি আন্ত বিভাগ ‘লেজার ট্যাগ’  টুর্নামেন্টের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ২০২৩ সালের ব্যাচ। গত বুধবার ঢাকার বসুন্ধরা...

সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস হেরে গেছেন

যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস এবারের নির্বাচনে হেরে গেছেন। ২০১০ সাল থেকে এমপি থাকা ট্রাস ইংল্যান্ডের পূর্বাঞ্চলীয় নরফোক সাউথ ওয়েস্ট নির্বাচনী এলাকায় লেবারদের কাছে ৬৩০...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here