Friday, June 21, 2024

বিষণ্নতার অনেক ঝুঁকি

ডা. মুনতাসীর মারুফ

বন্ধুর সঙ্গে মনোমালিন্য বা দাম্পত্য কলহপরীক্ষায় ফেলপথে বা কর্মস্থলে কারো দুর্ব্যবহারনাটকসিনেমায় প্রিয় চরিত্রের মৃত্যুখেলায় প্রিয় দলের হারপুরনো কোনো স্মৃতি রোমন্থনদৈনন্দিন জীবনযাপনে মন খারাপের কারণের তো শেষ নেই। এই মন খারাপকে আমরা বিষণ্নতা বলেই জানি। যেকোনো নেতিবাচক ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় সৃষ্ট এই দুঃখবোধ বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই সাময়িক। তবে বিষণ্নতা দীর্ঘমেয়াদি হলে তা যেকোনো ব্যক্তির দৈনন্দিন জীবনযাপন বাধাগ্রস্ত করে।

লক্ষণ

বিষণ্নতা রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির দিনরাতের বেশির ভাগ সময়ই মন প্রচণ্ড খারাপ বা ভার হয়ে থাকে। যেসব ঘটনা বা সংবাদে স্বাভাবিক অবস্থায় মন ভালো বা প্রফুল্লবোধ হওয়ার কথাসেসবে রোগীর মানসিক অবস্থার তেমন কোনো পরিবর্তন হয় না। এর পাশাপাশি বেশির ভাগ রোগীর আরো যেসব সমস্যা হয়সেগুলো হচ্ছে

►   কোনো কাজে আনন্দআগ্রহ বা উৎসাহ না পাওয়া

►   মনোযোগের অভাব

►  সিদ্ধান্তহীনতা

►   ঘুমের সমস্যা। ঘুম আসতে দেরি হওয়াতাড়াতাড়ি ভেঙে যাওয়া বা ঘুম ভাঙার পর আর আগের মতো সতেজ বা চাঙ্গা না লাগা

►   খাবারে অরুচি

►   ওজন হ্রাস

►   নেতিবাচক চিন্তা

►  অযৌক্তিক বা অতিরিক্ত অপরাধবোধ

►   অল্পতেই ক্লান্তি

►   চিন্তা ও কাজের ধীরগতি 

►  আত্মহত্যা প্রবণতা

বিষণ্নতার প্রভাব

ব্যক্তির কর্মক্ষমতা বাধাগ্রস্ত করে বা নষ্ট করে দেয় বিষণ্নতা।

 
এমনকি অনেকেই দৈনন্দিন স্বাভাবিক কাজ করতেও অসমর্থ হয়ে পড়েন। ফলে পরিবার ও বন্ধু-স্বজনের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি ঘটে। প্রসবের পর নারীর বিষণ্নতা সন্তানের বেড়ে ওঠায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। বিষণ্নতার সঙ্গে অন্যান্য অসংক্রামক রোগের রয়েছে নিবিড় সম্পর্ক।
 
বিষণ্নতা রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির মাদকাসক্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি, ডায়াবেটিস আর হৃদরোগের ঝুঁকিও কম নয়। অনেক সময় বিষণ্নতায় আক্রান্ত রোগী আত্মহত্যা করে বসতে পারে।

 

বিষণ্নতার ঝুঁকি

যে ব্যক্তির পরিবারে বিষণ্নতা রোগের ইতিহাস রয়েছেঅর্থাত্ যাঁর মাবাবাভাইবোন বা ঘনিষ্ঠ আত্মীয় বিষণ্নতায় আক্রান্ত হয়েছেন বা ছিলেনতাঁর বিষণ্নতায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি। ব্যক্তির বেড়ে ওঠার পরিবেশপারিবারিক পরিবেশশৈশবে শারীরিক বা মানসিক নির্যাতনব্যক্তিত্বের গঠন প্রভৃতিও এই রোগের ওপর প্রভাব ফেলে। এ ছাড়া দারিদ্র্যবেকারত্বঘনিষ্ঠ কারো মৃত্যুবিবাহবিচ্ছেদপ্রিয় কারো সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদশারীরিক রোগমাদকাসক্তি প্রভৃতি বিষণ্নতার ঝুঁকি বাড়ায়।

 

শিশুর বিষণ্নতা

বড়দের মতো শিশুরাও ভোগে বিষণ্নতায়। তবে শিশুদের চিন্তাভাবনা বা প্রকাশের ক্ষমতা বড়দের মতো হয় না বলে অনেক ক্ষেত্রে মন খারাপ হওয়ার কথা শিশুরা নাও বলতে পারে। তাদের ক্ষেত্রে বিরক্তিঅস্থিরতাখিটখিটে মেজাজই বিষণ্নতার বহিঃপ্রকাশ হতে পারে। এ ছাড়া স্কুলে যেতে অনীহাপড়ায় মনোযোগ না পাওয়াসমবয়সীদের সঙ্গে মিশতে বা খেলতে অনাগ্রহএকা একা চুপচাপ থাকা প্রভৃতি উপসর্গও দেখা যায়।

বিষণ্নতার চিকিৎসা

বিষণ্নতা একটি চিকিৎসাযোগ্য মানসিক রোগ। সঠিক সময়ে সঠিক চিকিৎসা গ্রহণ করলে এই রোগ নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। রোগের তীব্রতাভেদে ওষুধ অথবা সাইকোথেরাপি বা একই সঙ্গে উভয় পদ্ধতিতেই চিকিৎসা করা যায়। মৃদু বিষণ্নতার ক্ষেত্রে ওষুধ নাও লাগতে পারেসাইকোথেরাপি এবং পারিবারিকসামাজিক সহায়তাই তখন মূল চিকিৎসা পদ্ধতি। মাঝারি থেকে তীব্র বিষণ্নতার ক্ষেত্রে ওষুধ প্রয়োজন হয় বেশির ভাগেরই। ওষুধে উপসর্গ কমে গেলেও রোগীর পারিপার্শ্বিক অবস্থাভেদে চিকিৎসকের পরামর্শমতো দীর্ঘ সময় ওষুধ সেবনের প্রয়োজন হতে পারে।

মন ভালো রাখতে

মন ভালো রাখতে বা বিষণ্নতা এড়াতে দৈনন্দিন জীবনে কিছু বিষয় মেনে চলতে বা পালন করতে হবে। আর চিকিৎসা গ্রহণের পাশাপাশি কিছু বিষয়ের প্রতি লক্ষ রাখতে হবে

►   সুষমস্বাস্থ্যসম্মত খাবার গ্রহণ

►   পর্যাপ্ত সময় ঘুম

►   ইতিবাচক পারিবারিক সম্পর্ক ও পরিবেশ বজায় রাখা

►   সুস্থ ও স্বাভাবিক সামাজিক সম্পর্ক চর্চা

►  রুটিনমাফিক শৃঙ্খলাপূর্ণ জীবনযাপন

►   কাজ ও বিশ্রামের সময়ের মধ্যে সামঞ্জস্য বজায় রাখা

►   নিয়মিত ব্যায়াম বা শরীরচর্চা

যা থেকে বিরত থাকতে হবে

►   মানসিক চাপ বাড়িয়ে তোলে এমন কথা বা কাজ

►   ধূমপান ও মাদকাসক্তি

  অন্যের সঙ্গে তুলনা

 অবাস্তব বা অযৌক্তিক প্রত্যাশা

 নেতিবাচক মানুষের সঙ্গ

মোবাইল বা ইন্টারনেটের অতিরিক্ত ব্যবহার

লেখক : সহকারী অধ্যাপক সাইকিয়াট্রিজাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউ

spot_imgspot_img

ইতালিপ্রবাসীদের জন্য সুখবর দিল ভিএফএস

ভিএফএস গ্লোবালের অনিয়ম-দুর্নীতি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশের পর নড়েচড়ে বসেছে ভিএফএস গ্লোবাল। এবার তারা ইতালিপ্রবাসীদের জন্য সুখবর নিয়ে এসেছে। ভিএফএস তাদের নিজস্ব ফেসবুক পেজের মাধ্যমে...

জেলখানার চিঠি বিকাশ চন্দ্র বিশ্বাস  কয়েদি নং: ৯৬৮ /এ  খুলনা জেলা কারাগার  ডেথ রেফারেন্স নং: ১০০/২১ একজন ব্যক্তি যখন অথই সাগরে পড়ে যায়, কোনো কূলকিনারা পায় না, তখন যদি...

কর্মসৃজনের ৫১টি প্রকল্পে নয়ছয় মাগুরায়

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলায় ২০২৩-২৪ অর্থবছরে অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচির (ইজিপিপি) আওতায় দ্বিতীয় পর্যায়ের ৫১টি প্রকল্পের কাজে নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। প্রকল্পে হাজিরা খাতা না...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here