Wednesday, June 12, 2024

অনেক পরিশ্রম করেপ্রতিষ্ঠা পেয়েছি: রোজিনা

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০২২ সালের আসরে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন অভিনেত্রী রোজিনা। সম্মাননা প্রাপ্তি ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন তিনি।
 
আজীবন সম্মাননা পাওয়ার অনুভূতি জানতে চাই?
আমি দুবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছি। ১৯৮০ সালে ‘কসাই’ ছবির জন্য পাশর্^ অভিনেত্রী এবং ১৯৮৮ সালে ‘জীবন ধারা’ ছবির জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছিলাম। এবারের পুরস্কারটি একেবারেই আলাদা। সারা জীবনের কাজের স্বীকৃতি হিসেবে রাষ্ট্রীয় সম্মাননা পাচ্ছি। এটি খুবই আনন্দের। আমার সব প্রযোজক-পরিচালক, সহশিল্পী ও কলাকুশলীদের অনেক কৃতজ্ঞতা জানাই।
 
পুরোনো দিনের কথা কি মনে পড়ে?
অতীত স্মৃতি নিয়েই তো বেঁচে আছি। এফডিসিতে অনেক ভবন আমার চোখের সামনে তৈরি হয়েছে। ঝরনা স্পট, ডাবিং থিয়েটার, সাউন্ডল্যাব। এমনও সময় গেছে এক দিনে চারটি সিনেমার শুটিং করেছি। কত ব্যস্ততার মধ্যে দিন কাটিয়েছি। সত্যিই পুরোনো দিনগুলো অনেক মধুর ছিল। চলচ্চিত্রে আমার কোনো গডফাদার ছিল না। নিজে কষ্ট করে, কাজ করে প্রতিষ্ঠা পেয়েছি। কাজের স্বীকৃতি হিসেবে সম্মাননাও পেয়েছি।
 
এখন তো সবাই সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব?
আমরা সবাই সোশ্যাল মিডিয়া নির্ভর হয়ে গেছি। একটা সময় বিটিভি ছাড়া কোনো চ্যানেল ছিল না। তখনও আমরা বিটিভির কোনো অনুষ্ঠানে যেতাম না। কারণ বিনে পয়সায় আমাদের দেখে ফেললে, টিকেট কেটে সিনেমা দেখবে না। তারকাদের সবসময় আড়ালে রাখতে হয়। কিন্তু এখন সবাই ব্যক্তিগত বিষয়গুলো যেভাবে সামনে নিয়ে আসছে, তাতে তারকার প্রতি দর্শকের আগ্রহ কমে যাবে। সোশ্যাল মিডিয়ায় যতটুকু দরকার, ততটুকুই প্রকাশ করা ভালো।
 
বর্তমান সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি নিয়ে বলুন?
আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে পুরোনো পরিচালকদের সিনেমা দেখা যাচ্ছে না। ইন্ডাস্ট্রি টিকে থাকে বাণিজ্যিক ঘরানার সিনেমা দিয়ে। টিভি মিডিয়ার পরিচালকদের সিনেমা আসছে। তাদের মধ্যে কিছু নির্মাতার সিনেমার গল্পে নতুনত্ব থাকছে। কিন্তু সিনেমা হলে দর্শক আসছে না।
 
অনুদাননির্ভর সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি হয়ে যাচ্ছে?
প্রযোজক লগ্নিকৃত অর্থ ঠিকমতো ফেরত না পেলে নতুন প্রযোজক আসবে না। বিভিন্ন দেশে অনুদানের সিনেমা নির্মাণ হচ্ছে। এটা সরকারের একটা উদ্যোগ। কিছু গল্প আর্কাইভ করে রাখার জন্য। অনুদানের সিনেমা কখনোই ব্যবসাসফল সিনেমার সঙ্গে তুলনা করা চলবে না। আমিও একটি অনুদানের সিনেমা তৈরি করেছি। আমি একটি সত্য গল্প তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। এই গল্প কমিটিতে যারা থাকেন তারা নির্বাচন করেন। ইন্ডাস্ট্রির কিছু একটা পরিবর্তন হবে। আমি আশাবাদী।
 
রাজনীতিতে আসার ইচ্ছা আছে কী?
আমি যে কাজটা করি, খুবই সততার সঙ্গে করি। আমি ও আমার পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগ ঘরানার রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। মানুষের সেবা করাই আমার উদ্দেশ্য। এটা অনেক বড় কাজ। সুযোগ পেলে আরও বড় পরিসরে কাজ করতে চাই।
spot_imgspot_img

দেশের উপকূলে সেরা সব সমুদ্র সৈকত

সমুদ্র তটরেখার দেশ বাংলাদেশ। এ দেশ অপরূপ এক বদ্বীপ। আর এই বদ্বীপের জন্য প্রকৃতির আশীর্বাদ বঙ্গোপসাগর। সাগরের নোনা জলে অনেক কিছু পেয়েছে এদেশের মানুষ।...

‘ফুরমোন পাহাড়’ পর্যটকদের মুগ্ধ করছে

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি পাহাড়ি জেলা রাঙ্গামাটি। যেটি রূপের রানী নামে খ্যাত। পাহাড়, মেঘ, ঝিরি-ঝর্ণা, আঁকাবাঁকা পথের সঙ্গে মিশে আছে সুবিশাল মিঠাপানির কাপ্তাই হ্রদ। শহরে...

রাখাইনের সহিসংতা নৃশংসতার দিকে চলে যেতে পারে: যুক্তরাষ্ট্র

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সহিংসতা এবং আন্তঃসাম্প্রদায়িক উত্তেজনা বাড়ার কারণে যুক্তরাষ্ট্র গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। যুক্তরাষ্ট্র মঙ্গলবার এ কথা জানিয়ে বলেছে, রাখাইনের সহিসংতা নৃশংসতার দিকে চলে যেতে পারে। নভেম্বরে...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here