Friday, June 21, 2024

প্রকাশনা হতে পারে পেশা

নিজে প্রকাশনা সংস্থা তৈরি করতে পারেন। আবার প্রকাশনার যত ধরনের কাজ আছে তার প্রতিটি ক্ষেত্রই পেশা হিসেবে নিতে পারেন। প্রকাশনা শিল্পে বিনিয়োগ, ব্যবসা, কর্মক্ষেত্র এসব প্রতিনিয়ত বাড়ছে। প্রকাশনা সংস্থায় চাকরি বা নিজে প্রকাশক হলে যা করতে হবে 

প্রকাশনা পেশা হিসেবে নিতে হলে লেখালেখি ও প্রকাশনা সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকতে হবে। নিজে প্রকাশনী দিলে অনেক বেশি অর্থেরও প্রয়োজন হবে না। কারণ ডিটিপি, ছাপা ও বাঁধাই এসব কাজ করে দেওয়ার জন্য আছে অনেক প্রতিষ্ঠান। আপনাকে শুধু জানতে হবে পাবলিশিং ম্যানেজমেন্ট কীভাবে করতে হয়। পাবলিশিং-এর কাজ দুই ভাগে ভাগ করা যায়। যথা ১. প্রিপ্রেস ২. পোস্ট প্রেস। প্রকাশে যাওয়ার আগের কাজগুলো হচ্ছে প্রিপ্রেস ওয়ার্ক। আর ছাপা হওয়ার পর বাইন্ডিং সেলস, মার্কেটিং এবং ডিস্ট্রিবিউশনের কাজ আসে। এ কাজের ধারার যে কোনোটি আপনি পেশা হিসেবে নিতে পারেন।

পড়াশোনা

প্রকাশনার যে শাখায় ক্যারিয়ার গড়তে চান তার ওপর অ্যাকাডেমিক পড়াশোনা করে নিতে পারলে ভালো। এছাড়া পাবলিশিংয়ের ওপর ডিপ্লোমা, সার্টিফিকেট কোর্স করতে পারেন। টেকনিক্যাল বিষয়গুলো জানার জন্য পড়াশোনার প্রয়োজন হয়। কাজের ধরন, প্রতিষ্ঠানের অবস্থা, আপনার যোগ্যতা ইত্যাদি অনুযায়ী বেতন ও অন্যান্য পেশাগত সুযোগ-সুবিধা নির্ভর করবে। যোগ্যতা অনুযায়ী ১০ থেকে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত উপার্জন করা যায়। প্রকাশনায় ডিগ্রি বা ডিপ্লোমা থাকলেও ভালো কম্পিউটার জানতে হবে। বিশেষ করে ডেস্কটপ পাবলিশিং। পেজ মেকাপের কোয়ার্ক এক্সপ্রেস, অ্যাডোব ইন-ডিজাইন, অ্যাডের পেজ মেকআপ, ফটো এডিটিং ও অন্যান্য কাজের জন্য অ্যাডোব ফটোশপ, অ্যাডোব ইলাস্ট্রেটর জানতে হবে। আবার ট্রেসিং, পেন্টিং, প্লেট, প্রিন্টিং, আউটপুট ইত্যাদি বিষয়ও জানা দরকার। কোন প্রকাশনাতে ছবির অলঙ্করণ ও ফটোগ্রাফ বিষয়েও জানতে হবে।

কাজের ক্ষেত্র

সরকারি, বেসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, বিজ্ঞাপনী সংস্থায় পাবলিকেশন অফিসার নেওয়া হয়। এনজিওগুলোতেও এ পেশায় অনেক লোক নেওয়া হচ্ছে। বিশেষ করে সে সব এনজিও বিভিন্ন ক্যাম্পেইন ও অ্যাডভোকেসি-নির্ভর কাজ করে, সেগুলোতে। এসব কাজের গুরুত্বপূর্ণ শাখা হচ্ছে পাবলিকেশন। এর মধ্যে আছে পোস্টার, ফটো স্টোরি, অ্যানুয়াল রিপোর্ট, ক্যাটালগ বুলেটিন, বই জার্নাল ইত্যাদি। কাজেই পার্টটাইম বা ফুলটাইম হিসেবে কোনো প্রতিষ্ঠানে আপনি যুক্ত হতে পারেন খুব সহজেই। সংবাদপত্র অফিস, বিভিন্ন করপোরেট প্রতিষ্ঠান, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান, প্রকাশনা কোম্পানিতেও ভালো বেতনে চাকরিও করতে পারেন। এক্ষেত্রে খন্ডকালীন বিভিন্ন প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের প্রুফ রিডার, কম্পোজিটর এমনকি এডিটর হিসেবে কাজ করতে পারেন। দেশে একুশে বইমেলার আগে অনেক খ-কালীন লোকের দরকার হয়।

প্রকাশক হলে

চাকরি না করে যদি প্রকাশক হতে চান তবে শুরুতে প্রকাশনা সংস্থার নাম নির্বাচন করতে হবে। অফিস এবং সেলস কাউন্টার নেওয়া। কর্মী নিয়োগ ও অফিস ডেকারেশন করা। ট্রেড লাইসেন্স ও ব্যাংক একাউন্ট করা। প্যাড, মানি রিসিট, ভাউচার, খাম ও প্রয়োজনীয় অফিস ডকুমেন্ট তৈরি করা। এরপরে সময় ও যুগোপযোগী ব্যবসা পরিকল্পনা করা। সাহিত্য, বিজ্ঞান, স্পোর্টস, হেলথ, স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যবই প্রকাশনা  থেকে পছন্দের ক্ষেত্র বেছে নেওয়া। লেখকদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা। কাগজ ব্যবসায়ী প্রেসের লোকজনদের সঙ্গে সম্পর্ক রাখা। নিজের চাহিদা ও আর্থিক ব্যয় নিয়ে আলোচনা করা। অভিজ্ঞ প্রুফরিডার নেওয়া। মার্কেটিং টিমের সঙ্গে এজেন্টদের সঙ্গে মিটিং, পরিকল্পনা ও তাদের মতামত নেওয়া। প্রকাশনা সংস্থাকে পরিচিত করতে সোশ্যাল মিডিয়া, ওয়েবসাইট, প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রচরণা ও বিজ্ঞাপন দেওয়া।

কেমন পুঁজি দরকার

প্রকাশনা ব্যবসার বিনিয়োগ নানা আকারের হতে পারে। আট-দশ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেও স্বল্প পরিসরে প্রকাশনা ব্যবসা শুরু করা যেতে পারে, তবে বড় পরিসরে শুরু করতে হলে ২০-২৫ লাখ টাকার প্রয়োজন হয়। তবে যিনি যত বেশি মেধা প্রয়োগ করবেন, ব্যবসায়িক কৌশল অবলম্বন করতে পারবেন, তিনি তত বেশি সফল হবেন। মেধা, বুদ্ধি ও মননের ব্যবহার এ ব্যবসায় প্রসারতা লাভ করা যায়। বিনিয়োগ করলেই হবে না, ভালো মার্কেটিং নেটওয়ার্কও গড়ে তুলতে হবে।

প্রকাশকের যা থাকতে হয়

সব ধরনের লেখকের সঙ্গে সুসম্পর্ক ও যোগাযোগ থাকা। ভালো ছাপা, মানসম্মত বাঁধাই, প্রচ্ছদএসব দিকসহ খেয়াল রাখা। প্রকাশককেও সৃজনশীল হতে হবে।  ব্যবসায়িকভাবে সফলতা পেতে জনপ্রিয় লেখকদের সঙ্গে ভালো যোগাযোগ রাখা প্রয়োজন। খ্যাতনামা লেখকদের লেখা পেতে চাইলে আগে ভালো বই বের করতে হবে, যাতে তিনি আস্থা রাখতে পারেন। লেখকদের সম্মানী সময়মতো পরিশোধ করা। বইয়ের চুক্তি করে নেওয়া। বইয়ের প্রসার ও বিক্রি বাড়াতে প্রকাশক ঋতুভিত্তিক বই উৎসব, বইমেলার আয়োজন করে পাঠক তৈরি করা। প্রতিযোগিতামূলক ইভেন্টের আয়োজন করে, বই পুরস্কার দিয়েও পাঠক তৈরি করা সম্ভব। বই সম্পর্কে ছোট ছোট ক্লিপিং তৈরি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করা।

spot_imgspot_img

ইতালিপ্রবাসীদের জন্য সুখবর দিল ভিএফএস

ভিএফএস গ্লোবালের অনিয়ম-দুর্নীতি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশের পর নড়েচড়ে বসেছে ভিএফএস গ্লোবাল। এবার তারা ইতালিপ্রবাসীদের জন্য সুখবর নিয়ে এসেছে। ভিএফএস তাদের নিজস্ব ফেসবুক পেজের মাধ্যমে...

জেলখানার চিঠি বিকাশ চন্দ্র বিশ্বাস  কয়েদি নং: ৯৬৮ /এ  খুলনা জেলা কারাগার  ডেথ রেফারেন্স নং: ১০০/২১ একজন ব্যক্তি যখন অথই সাগরে পড়ে যায়, কোনো কূলকিনারা পায় না, তখন যদি...

কর্মসৃজনের ৫১টি প্রকল্পে নয়ছয় মাগুরায়

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলায় ২০২৩-২৪ অর্থবছরে অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচির (ইজিপিপি) আওতায় দ্বিতীয় পর্যায়ের ৫১টি প্রকল্পের কাজে নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। প্রকল্পে হাজিরা খাতা না...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here