Saturday, July 13, 2024

পাখিকে খাইয়ে সুখ

অর্থভুবন প্রতিবেদক

সূর্য তখন উঁকি দিচ্ছে পুব আকাশে। কেউ বের হয়েছে প্রাতর্ভ্রমণে, কেউ বা কর্মস্থলের উদ্দেশে। এর মধ্যেই বিভিন্ন গাছ, ভবনের ছাদ ও বৈদ্যুতিক তারে সারি সারি গাঙশালিকের অপেক্ষা। গামছা কাঁধে হাঁটতে হাঁটতে দোকানে এলেন একজন।

 
ঝাঁপ তুললেন। এরপর বের হলেন খাবারের গামলা নিয়ে। তাঁকে দেখে মাটিতে নেমে এলো ঝাঁকে ঝাঁকে গাঙশালিক। শুরু হলো কিচিরমিচির শব্দে ছোটাছুটি, হুড়াহুড়ি।
 
তিনি গামলা থেকে মাটিতে ছিটিয়ে দিলেন খাবার। মনের আনন্দে মিনিট বিশেক ধরে সেই খাবার খেল পাখিরা। এরপর মনে তৃপ্তি নিয়ে উড়ে গেল দিগ্বিদিক।

 

এই দৃশ্য প্রতিদিন ভোরে দেখা যায় ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার গাড়াগঞ্জ বাজারে।

 
উপজেলা সদর থেকে বাজারটির দূরত্ব প্রায় ছয় কিলোমিটার। যিনি ২২ বছর ধরে এভাবেই হাজারো পাখিকে আপ্যায়ন করেন তাঁর নাম মিলন ঘোষ; তিনি ঘোষ সুইটসের কর্ণধার। শুরুতে শুধু দই-মিষ্টির দোকান ছিল তাঁর। কয়েক বছর আগে ঘোষ সুইটস অ্যান্ড বিরিয়ানি হাউস নামের রেস্তোরাঁও দিয়েছেন। গাড়াগঞ্জ বাজারে দোকান দুটির দূরত্ব প্রায় ১০০ মিটারের মতো।
 
রেস্তোরাঁটি এখন দেখভাল করেন তাঁর বড় ছেলে জয়ন্ত ঘোষ। এখন এই দুই দোকানের সামনেই পাখিকে খাবার দেওয়া হয়। প্রতিদিন ভোরে মিলনকে এই কাজে সহায়তা করেন তাঁর ছেলে।

 

https://cdn.kalerkantho.com/public/news_images/share/photo/shares/1.Print/2023/10.October/14-10-2023/2/kalerkantho-ft-8a.jpgমিলন জানান, তিন ভাইয়ের মধ্যে সবার বড় মিলন। বাবা ছিলেন বর্গাচাষি। নুন আনতে পান্তা ফুরাত সংসারে। অভাবের কারণে স্কুলের গণ্ডি পেরোতে পারেননি। বাবার সঙ্গে ফসলের মাঠে ছুটতে হতো। গরুও পালতেন। একসময় চাষবাস ছেড়ে বাড়ি বাড়ি থেকে দুধ কিনে জেলা সদরে নিয়ে বিক্রি করতেন। পরে ভাবলেন, মিষ্টির দোকান দেবেন। সেটা ২০০১ সালের কথা। গাড়াগঞ্জ বাজারে ছোট্ট একটা দোকান ভাড়া নিয়ে দই-মিষ্টি ও নিমকি বিক্রি শুরু করলেন মিলন। দ্রুত তাঁর দই-মিষ্টির সুনাম ছড়িয়ে পড়ল। কয়েক বছরের মধ্যেই ছোট্ট সেই দোকানের পরিসর বেড়েছে। 

 বৃত্তিরানীনগর গ্রামের  বাসিন্দা মিলনের বয়স এখন পঞ্চাশের ঘরে। পাখির প্রতি ভালোবাসা ছেলেবেলা থেকেই। শৈশবে একবার একটা টিয়াও পুষতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর বাবা বলেছিলেন, ‘পাখিকে কখনো খাঁচায় বন্দি করবে না। তোমাকে যদি শিকল দিয়ে বেঁধে রাখি, কেমন লাগবে?’ তাই আর পাখি পোষা হয়নি তাঁর। তবে বাবার কথাটা মনে রেখেছেন। বন্ধুদের অনেকে তখন ফাঁদ পেতে বক, ডাহুক ইত্যাদি শিকার করতেন। মিলন কখনো সেই পথ মাড়াননি। সুযোগ পেলে কুকুর, বিড়ালকেও খাওয়াতেন। 

দোকান দেওয়ার পর শুরুর দিকে মিলন দেখতেন, একঝাঁক পাখি আশপাশের গাছপালায়, বৈদ্যুতিক তারে এমনকি তাঁর দোকানঘরের টিনের ওপর বসে আছে। দোকান খোলার সময় এরা কিচিরমিচির শব্দ করত। প্রথম কয়েক দিন উপেক্ষা করেছিলেন। কিন্তু একদিন সকালে পাখির সেই কিচিরমিচির আওয়াজ শুনে মিলনের মনে হলো, এই শব্দ যেন ক্ষুধার্ত পাখিদের এক ধরনের আর্তনাদ। তখন তিনি নিজের খাওয়ার জন্য আনা মুড়ি-চানাচুর ছিটিয়ে দিলেন সামনের খোলা জায়গায়। আর অমনি চারদিক থেকে পাখি এসে তা খেতে শুরু করল। এই দৃশ্য দেখে মন ভরল মিলনের। পরের দিনও একই কাজ করলেন তিনি। এভাবে একসময় পাখিকে খাবার দেওয়া রুটিনে পরিণত হলো তাঁর। ২২ বছর আগে সেই যে শুরু করেছেন এখনো তা বিরামহীনভাবে চলছে।

spot_imgspot_img

দেশ্যম ইউরো থেকে বিদায়ের দায়ভার নিজের কাঁধে নিলেন

ফ্রান্সের কোচ দিদিয়ের দেশ্যম দলের তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে কিংবা আঁতোয়ান গ্রিজম্যানদের ব্যর্থতাকে ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশীপের সেমিফাইনাল থেকে বিদায়ের জন্য দায়ী করেননি। স্পেনের কাছে ২-১ গোলে...

বুয়েটের শিক্ষার্থীরা ‘উচ্ছ্বসিত’ টগি ফান ওয়ার্ল্ডের লেজার ট্যাগে

টগি ফান ওয়ার্ল্ড থিম পার্কে সম্প্রতি আন্ত বিভাগ ‘লেজার ট্যাগ’  টুর্নামেন্টের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ২০২৩ সালের ব্যাচ। গত বুধবার ঢাকার বসুন্ধরা...

সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস হেরে গেছেন

যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস এবারের নির্বাচনে হেরে গেছেন। ২০১০ সাল থেকে এমপি থাকা ট্রাস ইংল্যান্ডের পূর্বাঞ্চলীয় নরফোক সাউথ ওয়েস্ট নির্বাচনী এলাকায় লেবারদের কাছে ৬৩০...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here